1. nagorikkhobor@gmail.com : admi2017 :
  2. shobozcomilla2011@gmail.com : Nagorik Khobor Khobor : Nagorik Khobor Khobor
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দেশ বি‌দে‌শের সর্ব‌শেষ খবর জান‌তে নাগ‌রিক খবরে চোখ রাখুন দেশ বি‌দে‌শের সর্ব‌শেষ খবর জান‌তে নাগ‌রিক খবরে চোখ রাখুন দেশ বি‌দে‌শের সর্ব‌শেষ খবর জান‌তে নাগ‌রিক খবরে চোখ রাখুন দেশ বি‌দে‌শের সর্ব‌শেষ খবর জান‌তে নাগ‌রিক খবরে চোখ রাখুন দেশ বি‌দে‌শের সর্ব‌শেষ খবর জান‌তে নাগ‌রিক খবরে চোখ রাখুন দেশ বি‌দে‌শের সর্ব‌শেষ খবর জান‌তে নাগ‌রিক খবরে চোখ রাখুন দেশ বি‌দে‌শের সর্ব‌শেষ খবর জান‌তে নাগ‌রিক খবরে চোখ রাখুন দেশ বি‌দে‌শের সর্ব‌শেষ খবর জান‌তে নাগ‌রিক খবরে চোখ রাখুন দেশ বি‌দে‌শের সর্ব‌শেষ খবর জান‌তে নাগ‌রিক খবরে চোখ রাখুন দেশ বি‌দে‌শের সর্ব‌শেষ খবর জান‌তে নাগ‌রিক খবরে চোখ রাখুন

টাঙ্গাই‌লে ১ হাজার টাকার জন‌্য ধর্ষণ মামলা: ২৫ হাজার টাকায় আপস

নিজস্ব প্রতি‌বেদক:
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৫৭৪ বার পঠিত
ফাইল ছ‌বি

আসামির সঙ্গে আপস করায় ধর্ষণ মামলার বাদীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে আসামি আলী হোসেনের আট সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও বিচারপতি কেএম জাহিদ সারওয়ারের সমন্বয়ে গঠিত অবকাশকালীন ডিভিশন বেঞ্চ এ আদেশ দেন।
আদালত বলেছেন, বিদ্যমান আইনে এ ধরণের গুরুতর অপরাধের মামলা আপসের সুযোগ নাই। আপসের বিষয়টি তদন্ত করে সত্যতা পেলে ওই নারীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টাঙ্গাইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেওয়া হলো। এছাড়া উচ্চ আদালতে জামিন আবেদনে বাদীর দাখিলকৃত অঙ্গীকারনামার সত্যতা পাওয়া না গেলে সংশ্লিষ্ট আইনজীবীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণেরও নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
গত ২২ অক্টোবর টাঙ্গাইলের সারুটিয়ায় ভাড়া বাসায় রাত ৮ টার দিকে ধর্ষণের শিকার হন এক নারী। এ ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(১) ধারায় আলী হোসেনের বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা করেন ওই নারী। মামলার এজাহারে বলা হয়, বাসা পরিবর্তনের সময় আমার স্বামীকে এক হাজার টাকা ধার দেয় আসামি। এই টাকা নেওয়ার জন্য আসামি বিভিন্ন সময়ে বাসায় আসত। আমার স্বামী বাসায় না থাকার সুযোগে সে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। বর্তমানে মামলাটির তদন্ত  চলছে। এমতাবস্থায় গত ৮ ডিসেম্বর আসামির সঙ্গে ২৫ হাজার টাকায় আপস করে অঙ্গীকারনামা দেন বাদী।
সেখানে তিনি বলেছেন, আলী হোসেন পাওনা এক হাজার টাকার জন্য ভাড়াটিয়া বাসায় আসলে আমার স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া হয়। যার সূত্র ধরে তার বিরুদ্ধে স্বামীর কথায় বাধ্য হয়ে মিথ্যা মামলা করি। পরে স্থানীয় মাতব্বর, ব্যক্তিবর্গ এবং আইনজীবীর পরামর্শে মামলাটি আপস মীমাংসা করি। এই আপসের কারণে আসামি পক্ষ আমাকে ২৫ হাজার টাকা প্রদান করে। আসামির বিরুদ্ধে আমার কোনো অভিযোগ নাই। অঙ্গীকার নামামূলে মামলাটি নিষ্পত্তি হলে আমার কোনো আপত্তি থাকবে না। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মনিরুল ইসলাম এবং আসামি পক্ষে মো. মজনু মোল্লা শুনানি করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 nagorikkhobor.Com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com