1. nagorikkhobor@gmail.com : admi2017 :
  2. shobozcomilla2011@gmail.com : Nagorik Khobor Khobor : Nagorik Khobor Khobor
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৫:৪২ অপরাহ্ন

লিভার সুস্থ রাখ‌তে যে খাবার গু‌লো প্রয়োজন

নাগ‌রিক স্বাস্থ‌্য ডেস্ক:
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৯ মার্চ, ২০২১
  • ১৯৭ বার পঠিত

আমা‌দের দেহের খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ হচ্ছে লিভার। যার ক্ষতি হলে মৃত্যুও ঘটে। লিভার আমাদের শরীরে জমে থাকা সব ক্ষতিকারক টক্সিনকে ছেঁকে শরীর থেকে বের করে দেয়। যদি কোনোভাবে লিভার তার কার্যক্ষমতা হারিয়ে ফেলে, তবে শরীরে জমে যাওয়া টক্সিন শরীরেই থেকে যাবে। যার ফলে শরীরের অন্যান্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গ একে একে বিকল হতে শুরু করবে।

এছাড়াও আমাদের দেহের বিভিন্ন কাজের সঙ্গে জড়িত এই লিভার। যেমন- রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি, হজম শক্তি, মেটবলিজম, দেহে পুষ্টি জোগায়। লিভার যদি সুস্থ্ থাকে তাহলে শরীর থেকে ক্ষতিকর টক্সিন বের করার সঙ্গে সঙ্গে রক্ত প্রবাহ নিয়ন্ত্রণ করে, দেহের সব অংশে পুষ্টি জোগায়। নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন, আমাদের সুস্থভাবে বেঁচে থাকার জন্য লিভার সুস্থ রাখা কতোটা জরুরী। লিভার সুস্থ্ রাখার জন্য এমন কিছু খাবার খাওয়া উচিত, যা আমাদের লিভারকে সুস্থ এবং স্বাভাবিক রাখবে।

দৈনন্দিন খাদ্যাভ্যাসে মৌলিক কিছু পরিবর্তন এনে লিভারকে সুস্থ্ রাখা সম্ভব। চলুন জেনে নেয়া যাক যে চার খাবারে সুস্থ থাকবে লিভার:

আপেল

প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় ১ টি করে আপেল রাখুন যা লিভারকে সুস্থ রাখবে। আপেলের পেক্টিন, ফাইবার দেহের পরিপাক নালী হতে টক্সিন ও রক্ত হতে কোলেস্টরোল দূর করে, সঙ্গে লিভারকেও সুস্থ রাখে। আপেলে আছে আরও কিছু উপাদান- ম্যালিক এসিড যা প্রাকৃতিক ভাবেই রক্ত হতে ক্ষতিকর টক্সিন দূর করে। যেকোনো ধরণের আপেলই দেহের লিভারের জন্য ভালো। তাই লিভার সুস্থ রাখতে প্রতিদিন ১ টি করে আপেল খান।

হলুদ

হলুদ সোনালি মশলা নামেও পরিচিত। এটি লিভারের সবচেয়ে বেশি উপকার করে। কারণ এই মশলাটি দেহ থেকে খাদ্য বিষ নিঃসরণের কাজ করে যেসব এনজাইম সেসবকে সহায়তা করে। ঠিক এ কারণেই ভারতীয় উপমহাদেশের রান্নায় সবসময়ই হলুদ ব্যবহার করা হয়। যার ব্যবহার আমাদের দেশের রান্নায়ও হয়ে থাকে। লিভারকে সুস্থ রাখতে চাইলে প্রতিদিন এক গ্লাস হালকা গরম পানিতে এক চা চামচ হলুদ মিশিয়ে পান করুন।

লেবু

লেবুতে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান যা দেহের লিভার পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে এবং ডি লিমনেন উপাদান লিভারে এনজাইমকে সক্রিয় করে। তাছাড়া লেবুর ভিটামিন সি লিভারে বেশি করে এনজাইম তৈরি করে যা হজম শক্তির জন্য বেশ উপযোগী। লেবুর মিনারেল লিভারের নানান পুষ্টি উপাদানগুলো শোষণ করার শক্তি বৃদ্ধি করে। বাসায় লেবুপানি পান করুন এবং যেকোনো সময় পানের জন্য লেবুপানি বানিয়ে রাখুন। প্রতিদিন লেবুপানি পান করুন, চাইলে সঙ্গে মধুও মিশিয়ে নিতে পারেন।

সবুজ চা

এন্টি-অক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ সবুজ চা। কেটেচিন নামক এক প্রকার উপাদান রয়েছে, যা লিভারের সমস্যা দূর করে। সবুজ চা শুধু স্বাদেই মজা যে তা নয়, এটি ডায়েট এর জন্য সব থেকে ভালো খাদ্য।

টক দই

টক দই লিভার সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। আপনার দিনটি শুরু করতে পারেন দই খেয়ে। মৌসুমি ফল হিসেবে কালো জাম লিভারের জন্য অসাধারণ কার্যকর।

লিভার সুস্থ রাখতে বেশি বেশি কালো জাম খান। লিভার খারাপ হলে বা শরীর থেকে টক্সিন দূর করতে প্রতিদিন করলা ও উচ্ছে খেলে দারুণ ফল পাবেন। রসুনের মতো কচি বাঁধাকপিতেও থাকে সালফার; যা লিভারের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করে। এর মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট ফ্রি র‌্যাডিকাল ড্যামেজ রুখতেও সাহায্য করে। পালং শাক, ব্রকোলি জাতীয় সবজি লিভার পরিষ্কার রাখে ও কার্যকারিতা বজায় রাখতে সাহায্য করে। এগুলো খাওয়ার ফলে লিভারের সকল অংশের উন্নতি সাধিত হয়।  লিভার ক্ষতিগ্রস্ত হয় শরীরের বিষাক্ত পদার্থের মাধ্যমে। পানি শরীর থেকে এই বিষাক্ত পদার্থগুলোকে বের করে দেয়। তাই লিভার সুস্হ রাখতে বেশি বেশি পানি পান করুন।নয়মিত কফি পানে লিভারের অসুখে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি অন্তত ১৪ শতাংশ কমে। তবে পরিমিত পান করতে হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 nagorikkhobor.Com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com