1. nagorikkhobor@gmail.com : admi2017 :
  2. shobozcomilla2011@gmail.com : Nagorik Khobor Khobor : Nagorik Khobor Khobor
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৫৩ অপরাহ্ন

কু‌মিল্লায় চি‌কিৎসক‌কে মারধর করার ঘটনায় ২৪ ঘন্টার ম‌ধ্যে ৩ অ‌ভিযুক্ত আসা‌মি গ্রেফতার

নাগ‌রিক খবর ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই, ২০২১
  • ৩০২‌ বার পঠিত

 ক‌রোনা রোগী ভ‌র্তি না করায় কুমিল্লা মনিপাল হার্ট ইনস্টিটিউট ( সাবেক ফরটিস) হাসপাতালের দা‌য়িত্বরত ডাক্তার তানভীর আকবরের উপর হামলাকারী ৩ জন অ‌ভিযুক্ত আসামিকে ঘটনার ২৪ ঘন্টার ম‌ধ্যে সদর সা‌র্কেল এএস‌পি সোহান সরকা‌রের নেতৃ‌ত্বে পু‌লি‌শের এক‌টি টিম গ্রেফতার ক‌রে।

কুমিল্লায়  বেসরকারি হাসপাতালে ম‌নিপল হার্ট ইন‌স্টি‌টিউট‌ে করোনারোগী ভর্তি না করায় রোগীর স্বজনদের মারধরের শিকার হয়েছেন ডাক্তার তানভীর না‌মের এক চি‌কিৎসক । এছাড়াও হাসপাতাল ভাংচুরসহ দায়িত্বরত একাধিক কর্মকর্তার ওপরও হামলা চালানোর অ‌ভি‌যোগ পাওয়া গে‌ছে।

হামলার একটি ভিডও ফুটেজ ভাইরাল হয়েছে। এ নিয়ে কুমিল্লার বিভন্ন মহলে তোলপাড় শুরু হয়েছে। ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চেয়েছেন কুমিল্লা সিভিল সার্জনসহ জেলায় কর্মরত চিকিৎসরা। রোববার (২৫ জুলাই) রাত ৯টায় নগরীর নোয়াপাড়া এএফসি ফরটিস হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। রাত ২টায় হামলার শিকার চিকিৎসক তানভীর আকবর নিজে বাদী হয়ে তিনজনসহ অজ্ঞাত ৫ জনের নামে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাতেই অভিযুক্ত মো. অনন্তকে (২৫) আটক করে এবং ঘটনার ২৪ ঘন্টার ম‌ধ্যে অপর দুই এজাহারভুক্ত আসা‌মি‌কে গ্রেফতার ক‌রে ।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, করোনায় আক্রান্ত হোসাইনের অবস্থা খারাপ হওয়া কুমিল্লা সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিট থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল বা ঢাকায় আইসিইউ স্থানান্তরের নির্দেশনা দেয়া হয়। কিন্তু রোগীর স্বজন কোথাও আইসিইউ না পেয়ে রোববার রাত সাড়ে ৮টায় ফরটিস হাসপাতালে জরুরি বিভাগে নিয়ে আসেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রোগীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ভর্তি নিতে রাজি হয়নি। রোগীর স্বজন জোরপূর্বক চাপ প্রয়োগ করে। বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে ৫-৬ জন মিলে চিকিৎসক তানভীরকে কিল ঘুষি দিতে থাকে। পরবর্তীতে লাঠি দিয়ে মারধর করা হয়।

এ বিষয়ে ডা. তানভীর আকবর সোমবার (২৬ জুলাই) নাগ‌রিক খবর‌কে জানান, জরুরি বিভাগে রোগীটি আসার পর চেকআপ করি। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সঙ্গে আসা স্বজনদের উন্নত চিকিৎসার জন্য হাই ফ্লু ন্যাসাল ক্যানুলা ও আইসিইউ সমৃদ্ধ হাসপাতালে যাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়। কিন্তু তারা হসপিটালে ভর্তির জন্য বারবার চাপ প্রয়োগ করে। এক পর্যায়ে আমার ওপর অতর্কিত হামলা করে তারা।

এ সময় আমাকে বাঁচাতে আসলে হাসপাতালের আরও কয়েকজন কর্মকর্তাকে মারধর করা হয়। এছাড়া হাসপাতালের সম্পদের ক্ষতি সাধন করে ও অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে সটকে পড়ে। এ ঘটনায় আমি রাতেই কোতয়ালী থানায় মামলা দায়ের করি। এ ঘটনার সাথে জড়িতদের সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন তিনি।

কুমিল্লা বিএমএ সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. আতাউর রহমান জসীম বলেন, করোনার অতি মহামারিতে কর্তব্যরত চিকিৎসকের উপর হামলার তীব্র নিন্দা এবং দায়ী ব্যক্তিদের শাস্তির দাবি জানাই।

এ‌দি‌কে তিন অ‌ভিযুক্ত আসা‌মি‌কে দ্রুত সময়ে গ্রেফতার করায় আন্ত‌রিক ধন‌্যবাদ জানান ডা. আতাউর রহমান।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 nagorikkhobor.Com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com