1. nagorikkhobor@gmail.com : admi2017 :
  2. shobozcomilla2011@gmail.com : Nagorik Khobor Khobor : Nagorik Khobor Khobor
মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ১১:৩৯ পূর্বাহ্ন

রংপু‌রে বসত‌ভিটার জন‌্য বাবা মা‌কে খাবার ছাড়া ৩ দিন ঘ‌রে বন্দী রাখে ছে‌লেরা

তারাগঞ্জ রংপুর:
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৬২৮ বার পঠিত

দুই শতাংশ বসতভিটার জমি লিখে নিতে ঘরের দরজা বন্ধ করে আট‌কি‌য়ে রাখা বৃদ্ধ বাবা-মাকে তিন দিন পর উদ্ধার করেছে পুলিশ। রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার সয়ার কুটিপাড়া গ্রামে অমান‌বিক ঘটনা‌টি ঘ‌টে। আটক‌ে থাকা তিন দিন তাদের কোন খাবার এমনকি পানি পর্যন্ত দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন  অসুস্থ হয়ে পড়া ওই বাবা-মা।

বিষয়টি তারাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) সুকুর আলী নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, এই ঘটনার ভিকটিম আবু সাঈদের বয়স ৯৫ বছর। আভিযুক্ত দুই ছেলের নির্যাতনে কয়েক দিন আগে স্ট্রোক করে অসুস্থ হয়ে পড়েন তাদের বাবা। তার চিকিৎসার ব্যবস্থা না করে বরং নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয় পাষণ্ড ওই দুই ছেলে।
এলাকাবাসী জানায়, আবু সাঈদ অনেক জমির মালিক ছিলেন, তার তিন ছেলে ও পাঁচ মেয়ে। বড় দুই ছেলে আমিনুর ও আখতারুজ্জামান বিভিন্ন সময় বৃদ্ধ বাবা-মাকে হুমকি-ধামকি দিয়ে জোর করে সব জমি তাদের নামে লিখে নেয়। কিন্তু সেই সব জমির বেশিরভাগই তারা বিক্রি করে দিয়েছে। এখন শেষ সম্বল দুই শতক জমির ওপর ঘর করে স্ত্রী জমিলা খাতুনকে নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন আবু সাঈদ। কিন্তু বৃদ্ধের দুই ছেলে আমিনুর ও আখতারুজ্জামান ওই জমিটুকু নিজেদের নামে লিখে নিতে অনেকদিন ধরে তাদের ওপর মানসিক নির্যাতন চালিয়ে আসছে।
বাবা-মাকে ঘরের ভেতর বন্দী করে রাখার এ ঘটনা জানাজানি হলে বৃদ্ধের দুই মেয়ে এসে তারাগঞ্জ থানায় খবর দেয়। পুলিশ এসে তাদের উদ্ধার করে। এ ঘটনায় জামিলা খাতুন থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।
জমিলা জানান, এক সময় অনেক জমিজমা, সম্পদ ছিল। দুই ছেলে আমিনুর ও আখতারুজ্জামান বিভিন্ন সময় তাদের হুমকি-ধামকি দিয়ে, মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন করে সব জমি তাদের নামে জোর করে লিখে নেয়। কিন্তু তারা জমিগুলো রাখতে পারেনি, কম দামে বেশিরভাগ জমি বিক্রি করে দিয়েছে। এখন শেষ সম্বল মাত্র দুই শতক জমি লিখে দেওয়ার জন্য তাদের ওপর অত্যাচার শুরু করেছে। এ জমি লিখে দিলে, বৃদ্ধ অসুস্থ স্বামীকে নিয়ে কোথায় যাবেন- প্রশ্ন রাখেন জমিলা খাতুন। তিনি এর বিচার দাবি করেন।
বৃদ্ধ বাবা-মাকে রক্ষা এবং তাদের ওপর নির্যাতন বন্ধ করার দাবি জানিয়েছেন তার দুই মেয়ে জান্নাতী বেগম ও শামসুন্নাহার। তারা বলেন, জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে আমাদের বাবা স্ট্রোক করার কারণে বাকশক্তি হারিয়ে ফেলেছেন। মাও গুরুতর অসুস্থ। এমন অবস্থায় বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রেখে তাদের ওপর নির্যাতনকারী দুই ভাইয়ের বিচার চাই।
তারাগঞ্জ থানায় যোগাযোগ করা হলে ওসি (তদন্ত) সুকুর আলী জানান, খবর পেয়ে গত বৃহস্পতিবার ঘটনাস্থলে গিয়ে বৃদ্ধ বাবা-মাকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 nagorikkhobor.Com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com