1. nagorikkhobor@gmail.com : admi2017 :
  2. shobozcomilla2011@gmail.com : Nagorik Khobor Khobor : Nagorik Khobor Khobor
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:২৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
H H H H H H H H H H

ভিক্ষুকের জাতি হিসেবে বাঁচতে যুদ্ধ করিনি: মন্ত্রী তাজুল ইসলাম

নিজস্ব প্রতি‌বেদক:
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৩৭৪ বার পঠিত

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, বাঙালি ভিক্ষুকের জাতি হিসেবে বেঁচে থাকার জন্য ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীনতা অর্জন করেননি।বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) বিকেলে নগর ভবনের মেয়র হানিফ অডিটোরিয়ামে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত ৪৯তম বিজয় দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তাজুল ইসলাম এ কথা বলেন।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি ক্ষমতায় এসে পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে বলে দেশে দুর্ভিক্ষ, খাদ্য ঘাটতি থাকলে ভিক্ষা পাওয়া যায়। আর আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা বলেন ভিক্ষুকের জাতি হিসেবে বেঁচে থাকার জন্য ত্রিশ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে দেশ স্বাধীন করা হয়নি। এদেশের মানুষ নিজেদের আত্মমর্যাদা নিয়ে সারা বিশ্বে মাথা উঁচু করে বাঁচবে।
বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙা প্রসঙ্গে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের ওপর আঘাত করলে, ভাস্কর্যের বিরোধিতা করে জাতির পিতাকে অসম্মানিত করলে, পুরো জাতির বুকের রক্তক্ষরণ হয়। তাই এধরণের কার্যক্রম দেশের মাটিতে আর করতে দেয়া হবে না। যদি কেউ চেষ্টা করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে তা মোকাবিলা করা হবে।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর সারাজীবনের লড়াই-সংগ্রামের ফলে, ত্রিশ লক্ষ শহীদ এবং দুই লক্ষাধিক মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে এই দেশ স্বাধীন হয়েছে। হাজারো কষ্টের বিনিময় লালিত স্বপ্নের স্বাধীনতা অর্জিত হওয়ার পর বঙ্গবন্ধু যখন দেশে ফিরে আসেন তখন বাঙালি জাতি সেই দুঃখ কষ্ট ভুলে যায়।
স্থানীয় সরকার মন্ত্রী আরো বলেন, ১৯৯৬ সালে শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে যে উন্নয়নের যাত্রা শুরু করেছিলেন, ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় এসে আওয়ামী লীগের সে সকল গৃহীত উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বন্ধ করে দেয়। শুধু তাই নয়, স্বাধীনতাবিরোধীদের ক্ষমতায় এনে লাল-সবুজের পতাকাকে কলঙ্কিত করেছে। আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করতে দেশি-বিদেশি দোসরদের সাথে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।
তাজুল ইসলাম বলেন, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর-এলজিইডিসহ মন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকা সকল প্রতিষ্ঠানে চলমান কার্যক্রমের গুণগত মান এবং রাষ্ট্র পরিপন্থী কাজের সাথে যুক্ত থাকলে কারও সাথে কোন আপোষ করা হবে না। কেউ যদি নিম্নমানের কাজের সাথে, দুর্নীতির সাথে জড়িত থাকে, তাহলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।
দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সঞ্চালনা করেন ডিএসসিসি’র সচিব আকরামুজ্জামান। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, ডিএসসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী। অনুষ্ঠানে সংস্থার প্রধান প্রকৌশলী রেজাউর রহমান, প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আরিফুল হক এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর ও মহিলা কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 nagorikkhobor.Com
Theme Developed BY ThemesBazar.Com